নামাজ পড়ার ফজিলত ও নামাজ ত্যাগের ভয়াবহ পরিনতি



১। হযরত হানযালা আল উসাইদী রাযি. হতে বর্ণিত,

عن حنظلة الاسيدى ان رسول الله صلى الله عليه و سلم قال من حافظ على الصلوات الخمس على وضوئها ومواقيتها وركوعها وسجودها يراها حقا لله عليه حرم على النار

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, যে ব্যক্তি পাঁচ ওয়াক্ত নামাজকে এরূপ পাবন্দির সাথে আদায় করে, উজু ও সময়ের এহতেমাম করে, রুকু সেজদা উত্তমরূপে আদায় করে এবং এইরূপ নামাজ আদায় করাকে নিজের উপর আল্লাহর হক মনে করে তবে জাহান্নামের আগুনের জন্য তাকে হারাম করে দেয়া হবে।(মুসনাদে আহমদ, হাদীস নং ১৮৩৭২)

২। হযরত আবু হুরায়রা রাযি. হতে বর্ণিত

أن رسول الله -صلى الله عليه وسلم- كان يقول الصلوات الخمس والجمعة إلى الجمعة ورمضان إلى رمضان مكفرات ما بينهن إذا اجتنب الكبائر.

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন,পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ ও জুমআর নামাজ পরবর্তী জুমআর নামাজ পর্যন্ত এবং রমজানের রোজা পরবর্তী রমজানের রোজা পর্যন্ত মধ্যবর্তী সকল (সগীরা) গুনাহের জন্য কাফফারা হবে। যদি এই আমলসমূহ পালনকারী কবীরা গুনাহ হতে বেঁচে থাকে।(সহীহ মুসলিম,হাদীস নং ৫৭৪,মুসনাদে আহমদ ,হাদীস নং ৯১৮৬)

৩। হযরত আবু হুরায়রা রাযি. হতে বর্ণিত,

أن رسول صلى الله عليه و سلم قال أرأيتم لو أن نهرا بباب أحدكم يغتسل منه كل يوم خمس مرات هل يبقى من درنه شيء ؟ قالوا لا يبقى من درنه شيء قال فذلك مثل الصلوات الخمس يمحو الله بهن الخطايا

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, বল দেখি যদি কোন ব্যক্তির দরজার সামনে একটি নহর প্রবাহিত থাকে, যাতে সে প্রতিদিন পাঁচবার গোসল করে, তবে তার শরীরে কি কোন ময়লা বাকী থাকবে? সাহাবাগন আরজ করলেন, কিছুই বাকী থাকবে না। হুজুর সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বললেন, পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের অবস্থাও এরকমই যে, আল্লাহ তাআলা তার বদৌলতে গুনাহসমূহ মিটিয়ে দেন।(জামেউত তিরমিজী, হাদীস নং ২৮৬৮,বুখারী শরীফ হাদীস নং ৫০৫,মুসলিম শরীফ হাদীস নং ১৫৫৪ )

৩।
عن أبي ذر أن النبي صلى الله عليه وسلم خرج زمن الشتاء والورق يتهافت فأخذ بغصنين من شجرة قال فجعل ذلك الورق يتهافت قال فقال يا أبا ذر قلت لبيك يا رسول الله قال إن العبد المسلم ليصل الصلاة يريد بها وجه الله فتهافت عنه ذنوبه كما يتهافت هذا الورق عن هذه الشجرة

হযরত আবু যর রাযি. হতে বর্ণিত,রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম একদিন শীত কালে বের হলেন, তখন গাছের পাতা ঝরছিল। তিনি একটি গাছের ডাল ধরলেন ফলে এর পাতা আরো বেশী ঝরতে লাগল। তিনি বললেন,হে আবু যর! আমি বললাম উপস্থিত, হে আল্লাহর রাসূল! তিনি বললেন, মুসলিম বান্দা যখন ইখলাসের সাথে আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য নামাজ পড়ে তখন তার গুনাহ সমূহ এমনভাবে ঝরে পড়ে যেমন এই গাছের পাতা ঝরে পড়ছে।( মুসনাদে আহমদ, হাদীস নং ২১৫৫৬)

নামাজ ত্যাগের ভয়াবহ পরিনাম

১। হযরত জাবের ইবনে আব্দুল্লাহ রাযি. হতে বর্ণিত, তিনি বলেন,

سمعت النبي صلى الله عليه و سلم يقول إن بين الرجل وبين الشرك والكفر ترك الصلاة

আমি রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে বলতে শুনেছি, একজন মুসলিম ও শিরক, কুফরের মাঝে পার্থক্য হল নামাজ ছেড়ে দেয়া। অর্থাৎ নামাজ ছেড়ে দেয়া মুসলিম ব্যক্তিকে কুফর ও র্শিক পর্যন্ত পৌছে দেয়। (সহীহ মুসলিম, হাদীস নং ৮২)

২। হযরত নাওফাল ইবনে মুয়াবিয়া রাযি. হতে বর্ণিত,

أن النبي صلى الله عليه و سلم قال من فاتته الصلاة فكأنما وتر أهله وماله

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, যার এক ওয়াক্ত নামাজ ছুটে গেল তার যেন ঘরবাড়ি পরিবার ও ধনসম্পদ সবই কেড়ে নেয়া হল।(সহীহ ইবনে হিব্বান, হাদীস নং ২৪৬৮, নাসাঈ শরীফ, হাদীস নং ৭৪৮)
৩। হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাস রাযি. হতে বর্ণিত,

قال رسول الله صلى الله عليه و سلم : من جمع بين الصلاتين من غير عذر فقد أتى بابا من أبواب الكبائر

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, যে ব্যক্তি শরীয়ত সম্মত ওজর ব্যতীত দুই ওয়াক্ত নামাজ একসঙ্গে পড়ল, সে কবীরা গোনাহের মধ্য থেকে একটিতে প্রবেশ করল।(মুসতাদরাকে হাকেম, হাদীস নং ১০২০, সুনানুল ক্বুরা লিল বাইহাক্বী, হাদীস নং ৫৭৭১)

৪। হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আমর রাযি. হতে বর্ণিত,

عن النبي صلى الله عليه و سلم أنه ذكر الصلاة يوما فقال من حافظ عليها كانت له نورا وبرهانا ونجاة يوم القيامة ومن لم يحافظ عليها لم يكن له نور ولا برهان ولا نجاة وكان يوم القيامة مع قارون وفرعون وهامان وأبي بن خلف

একদিন রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম নামাজের বিষয় উল্লেখ করে বললেন, যে ব্যক্তি নামাজের ইহতেমাম করে, তার জন্য নামাজ কিয়ামতের দিন নূর হবে ও হিসাবের সময় দলীল হবে ওবং নাজাতের উপায় হবে। আর যে ব্যক্তি নামাজের ইহতিমাম করে না, কিয়ামতের দিন নামাজ তার জন্য নূর হবে না, আর তার নিকট কোন দলীলও থাকবে না এবং নাজাতের জন্য কোন উপায়ও হবে না।এমন ব্যক্তির হাশর হবে ফেরআউন, হামান ও উবাই ইবনে খলফের সাথে।(মুসনাদে আহমদ, হাদীস নং ৬৫৭৬, সহীহ ইবনে হিব্বান হাদীস নং ১৪৬৭)

আল্লাহ তাআলা আমদের পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের ইহতেমাম করার তাওফিক দান করুন। আমীন।

Add a post Now

Comments

Please login to comment

Login Now

// FEATURED

  • স্বামী এবং স্ত্রীর মধ্যে পর্দা নিয়ে কথোপকথন

    10 May 2019

  • স্বামী -: তুমি কি বোরকা ছাড়া আগামী শুক্রবার তোমার চাচাতো বোনের বিবাহের অনুষ্ঠানে যেতে চাচ্ছো?? স্ত্রী :- হ্যাঁ!! কেনো নয়?? বিশেষ একটা দিন! স্বামী -: নাহ, তুমি বোরকা ছাড়া ঘর থেকে বেরহতে পারো...


  • নামাজ পড়ার ফজিলত ও নামাজ ত্যাগের ভয়াবহ পরিনতি

    09 May 2019

  • ১। হযরত হানযালা আল উসাইদী রাযি. হতে বর্ণিত, عن حنظلة الاسيدى ان رسول الله صلى الله عليه و سلم قال من حافظ على الصلوات الخمس على وضوئها ومواقيتها وركوعها وسجودها يراها حقا لله عليه حرم على النار রাসূ...


  • নামাজ সম্পর্কিত কিছু আয়াত ও হাদীস

    09 May 2019

  • আয়াত নং-১: اِنَّ الصَّلٰوةَ تَنْهٰى عَنِ الْفَحْشَاءِ وَالْمُنْكَرِ- অর্থাৎ- নিশ্চয়ই নামায মানুষকে অশ্লীল ও ঘৃণিত কাজ থেকে বিরত রাখে। সূরা: আনকাবূত, আয়াত-৪৫ আয়াত নং-২ حٰفِظُوْا عَلَى الصَّلٰوتِ وَ...


  • উন্নত বিশ্ব এবং আমাদের মধ্যে পার্থক্য কি?
    উন্নত বিশ্ব এবং আমাদের মধ্যে পার্থক্য কি?

    03 May 2019

  • আমার স্টুডেন্ট আমাকে একবার প্রশ্ন করলো , আচ্ছা ভাইয়া , যে আমেরিকা পরমানু বোমা বানাতে পারে , রকেট বানাতে পারে , আধুনিক যুদ্ধ বিমান বানাতে পারে , তারা কি নিজেদের পোশাক , জামা কাপড় নিজেরা বানাতে পারে না...


  • দাম্পত্য জীবনে সুখী হবার উপায়
    দাম্পত্য জীবনে সুখী হবার উপায়

    06 November 2018

  • #দাম্পত্য_জীবনে_সুখি_হওয়ার_উপায়   #স্বামীদের_জন্য   "আরে বলিস না দোস্ত বউয়ের জ্বালায় বাসায় যেতে ইচ্ছে করে না!!সবসময় একই কথা,তুমি আমাকে আগের মতো ভালবাস না,সময় দাও না!!প্রতিনিয়ত এসব শুনতে...